Saturday, August 1
Shadow

Tag: হাদিস

নামাজের ফরজ, ওয়াজিব, সুন্নাত, মুস্তাহাব, মাকরূহ ও নামাজ ভঙ্গের কারনসমুহ

নামাজের ফরজ, ওয়াজিব, সুন্নাত, মুস্তাহাব, মাকরূহ ও নামাজ ভঙ্গের কারনসমুহ

সালাত
নামাজের ফরজসমূহ (আরকান ও আহকাম)ঃ আহকাম ও আরকান মিলিয়ে নামাজের ফরজ মোট ১৩টি। নামাজ শুরু হওয়ার আগে বাইরে যেসব কাজ ফরজ, সেগুলোকে নামাজের আহকাম বলা হয়।  নামাজের আহকাম ৭টি। যথাঃ ১. শরীর পাক হওয়াঃ  এ জন্য অজুর দরকার হলে অজু বা তায়াম্মুম করতে হবে, গোসলের প্রয়োজন হলে গোসল বা তায়াম্মুম করতে হবে। এ প্রসঙ্গে কুরআনে আল্লাহ বলেনঃ يَٰٓأَيُّهَا ٱلَّذِينَ ءَامَنُوٓا۟ إِذَا قُمْتُمْ إِلَى ٱلصَّلَوٰةِ فَٱغْسِلُوا۟ وُجُوهَكُمْ وَأَيْدِيَكُمْ إِلَى ٱلْمَرَافِقِ وَٱمْسَحُوا۟ بِرُءُوسِكُمْ وَأَرْجُلَكُمْ إِلَى ٱلْكَعْبَيْنِ ۚ হে মুমিনগণ, যখন তোমরা সালাতে দণ্ডায়মান হতে চাও, তখন তোমাদের মুখ ও কনুই পর্যন্ত হাত ধৌত কর, মাথা মাসেহ কর এবং টাখনু পর্যন্ত পা (ধৌত কর)।  (সূরা মায়েদাঃ ৬) ২. কাপড় পাক হওয়াঃ  পরনের জামা, পায়জামা, লুঙ্গি, টুপি, শাড়ি ইত্যাদি পাক পবিত্র হওয়া।এ প্রসঙ্গে আল্লাহ বলেনঃ وَثِيَابَكَ فَطَ...
ফিতরা (সদকাতুল ফিতর) কী এবং কেন? ফিতরার হকদার কারা?

ফিতরা (সদকাতুল ফিতর) কী এবং কেন? ফিতরার হকদার কারা?

রমজান
আজকের আলোচ্য বিষয় সমূহঃ ফিতরা কী? ফিতরার পরিমাণ আসলে কত? ফিতরার আর্থ-সামাজিক গুরুত্বঃ সদকাতুল ফিতর ও কিছু নতুন ভাবনাঃ ফিতরার হকদার কারা ? অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এ আলোচনা সময় নিয়ে বুঝে পড়ুন ও আমল করুন। সে সাথে অন্যদের সাথে এ লেখার লিংক শেয়ার করে তাদেরকেও জানার ও আমল করার সুযোগ দিন। পবিত্র রমজান মাসে বিশেষ কিছু আমল আমাদের জন্য রাখা হয়েছে। এর মধ্যে সাদকাতুল ফিতর একটি অন্যতম ইবাদত। ঈদের দিন গরিবদের খাবারের জন্য শরিয়তপ্রদত্ত একটি ব্যবস্থাপত্র। সাদকাতুল ফিতর সম্পর্কে নবীজি (সা.) বলেছেন, তোমরা এ দিনটিতে তাদেরকে অন্যের কাছে চাওয়া থেকে বিরত রাখো। জাকাতের মতো এটিও দরিদ্র মানুষের ওপর মহান আল্লাহ কর্তৃক নির্ধারিত আমলি সহযোগিতা। ইসলামী শরিয়তের হুকুম মোতাবেক ঈদের দিনের ফজরের নামাজের আগে যে সন্তান জন্মগ্রহণ করবে তারও ফিতরা আদায় করা ওয়াজিব। ফিতরা কী? ইসলামী শরিয়তের হুকুম মোতাবেক এটি একটি...
কুরআনের ও হাদীসের আলোকে যাকাতের বিস্তারিত বিধান

কুরআনের ও হাদীসের আলোকে যাকাতের বিস্তারিত বিধান

রমজান
আজকের লেখার আলোচিত বিষয়সমূহঃ যাকাত কি ? যাকাত পরিশোধ না করার পরিণাম। যাকাতের নিসাব। যাকাত বহির্ভুত সম্পদ। যে সকল সম্পদের যাকাত ফরযঃ যাকাত আদায়ের নিয়ত: যাকাত আদায় করার সময়: যাকাত প্রদানের খাতঃ আশা করি সময় নিয়ে মনযোগ সহকারে বুঝে পড়বেন ও আমল করবেন। পড়া শেষে লেখাটা শেয়ার করে অন্যকেও জানার সুযোগ করে দিবেন। যাকাত কি ?   যাকাত ইসলামের পাচটি ভিত্তিসমূহের একটি ভিত্তি। যাহা ইসলামের মৌলিক ইবাদতসমূহের মধ্যে অন্যতম ইবাদত। প্রত্যেক মুসলমানকে যেমন যাকাত ফরয হওয়ার বিষয় সম্পর্কে বিশ্বাস করতে হবে, ঠিক তেমনিভাবে যার উপর যাকাত ফরয তাকে তা নিয়মিত পরিশোধও করতে হবে।   যাকাত বলতে বুঝায়:   خُذْ مِنْ أَمْوَالِهِمْ صَدَقَةً تُطَهِّرُهُمْ وَتُزَكِّيهِم بِهَا وَصَلِّ عَلَيْهِمْ إِنَّ صَلاَتَكَ سَكَنٌ لَّهُمْ وَاللّهُ سَمِيعٌ عَلِيمٌ : التوبة (103)   হে...
কুরবানি ও ঈদুল আযহার বিধি-বিধান

কুরবানি ও ঈদুল আযহার বিধি-বিধান

জীবন বিধান
• কুরবানির বিধি-বিধান: কুরবানি মূলত: জীবিত মানুষের জন্য। যেমন নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এবং সাহাবায়ে কেরাম নিজেদের পক্ষ থেকে এবং তাঁদের পরিবার-পরিজনের পক্ষ থেকে কুরবানী করতেন। কিন্তু কিছু মানুষ মনে করে কুরবানী কেবল মৃতদের সাথে সংশ্লিষ্ট। এর আদৌ কোন ভিত্তি নাই। মৃত মানুষের পক্ষ থেকে কুরবানী করা তিনভাগে বিভক্ত। যথা: ১) জীবিতদের সাথে মৃতদেরকেও শরীক করা। যেমন, নিজের এবং নিজ পরিবারের পক্ষ থেকে কুরবানীতে মৃতদেরও নিয়ত করা। এর দলীল হল, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম নিজের পক্ষ থেকে এবং তাঁর পরিবারের জীবিত ও মৃত সবার পক্ষ থেকে কুরবানী করেছেন। ২) মৃত মানুষের ওসীয়ত মোতাবেক কুরবানী করা। এ ব্যাপারে আল্লাহ তায়ালা বলেন: فَمَن بَدَّلَهُ بَعْدَ مَا سَمِعَهُ فَإِنَّمَا إِثْمُهُ عَلَى الَّذِينَ يُبَدِّلُونَهُ “যদি কেউ ওসীয়ত শোনার পর তাতে কোন রকম পরিবর্তন করে, তবে যারা পরিবর্তন করে তা...
মুহররম ও আশুরার ফজিলত (পবিত্র কুরআন ও হাদিসের আলোকে)।

মুহররম ও আশুরার ফজিলত (পবিত্র কুরআন ও হাদিসের আলোকে)।

হাদিস
প্রবন্ধটি পড়া হলে, শেয়ার করতে ভুলবেন না রহমান রহীম আল্লাহ্‌ তায়ালার নামে- লেখক : মুহাম্মাদ সালেহ আল মুনাজ্জিদ |  অনুবাদক : ইকবাল হোছাইন মাছুম।   الحمد لله رب العالمين، والصلاة والسلام على نبينا محمد خاتم الأنبياء وسيد المرسلين وعلى آله وصحبه أجمعين وبعد মুহররম, একটি মহান বরকতময় মাস। হিজরি সনের (more…)
হাদিস সম্পর্কিত কিছু প্রশ্ন ও উত্তরঃ

হাদিস সম্পর্কিত কিছু প্রশ্ন ও উত্তরঃ

হাদিস
প্রশ্নোত্তরে ইসলামী জ্ঞান: (চতুর্থ পর্ব) বিষয়: হাদীছ শরীফ 191. প্রশ্নঃ হাদীছ কাকে বলে? উত্তরঃ নবী (সাঃ)এর কথা, কাজ ও সমর্থনকে হাদীছ বলে। 192. প্রশ্নঃ হাদীছ কত প্রকার ও কি কি? উত্তরঃ হাদীছ দুপ্রকারঃ মাকবূল (গ্রহণযোগ্য) হাদীছ ও (মারদূদ) অগ্রহণযোগ্য হাদীছ। 193. প্রশ্নঃ মাকবূল হাদীছ কত প্রকার ও কি কি? উত্তরঃ মাকবূল হাদীছ দুপ্রকারঃ ছহীহ ও হাসান। 194. প্রশ্নঃ মারদূদ (more…)...
মেয়েদের চুল ছোট করে কাটা যাবে না !!! এক কথায় হারাম !! হারাম !! হারাম !!

মেয়েদের চুল ছোট করে কাটা যাবে না !!! এক কথায় হারাম !! হারাম !! হারাম !!

জীবন বিধান
আলেমগণ মেয়েদের চুল ছোট করে কাটা নিষিদ্ধ করেছেন ২টি হাদিসের বক্তব্যকে সামনে রেখে - ১. অমুসলিমদের অনুসরণ করা ২. ছেলেদের সাদৃশ্য ধারণ করা **১ম হাদিসঃ রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, "যে ব্যক্তি যে জাতির অনুসরণ করবে সে তাদের অন্তর্ভুক্ত হবে।" [আবূ দাউদ, ৪০৩১] অমুসলিম নারীরা চুল ছোট রাখে। তাই তাদের অনুসরণ করা নিষিদ্ধ। **২য় হাদিসঃ রাসূল (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) ওইসব নারীদের লা'নত করেন, যারা পুরুষের সাদৃশ্য গ্রহন করে এবং ওইসব পুরুষদের লা'নত করেন যারা নারীদের সাদৃশ্য গ্রহন করে। [বুখারী, ৭/২০৫] বর্তমান সময়ের ফ্যাশন সচেতন বোনেরা অনেকেই চুল ছোট প্লাক করে থাকেন এবং নানা রঙের নানা ধরনের কাটিং ও ব্যাবহার করে থাকেন। অথচ যারা এমন করেন, রাসুল (সাঃ) তাদেরকে অভিশাপ দিয়েছেন। কাজেই বোনেরা আল্লাহর ভয়ে এই ধরনের কাজ থেকে বিরত থাকুন। ● ইবনে উমার (রাঃ) হতে বর্ণিত, রাসুলু...
বিতরের নামায ৩ (তিন) রাকাত, এক সালামে : হাদীস দ্বারা প্রমানিত।

বিতরের নামায ৩ (তিন) রাকাত, এক সালামে : হাদীস দ্বারা প্রমানিত।

হাদিস
নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বিতরের নামায তিন রাকাত পড়তেন, এক রাকাত পড়া প্রমাণিত নয়। তদ্রূপ যেসব রেওয়ায়েতে তিন রাকাতের অধিক, যথা পাঁচ, সাত বা নয় রাকাত পড়ার কথা বলা হয়েছে সেখানেও মূল বিতর তিন রাকাত। বর্ণনাকারী পূর্বের বা পরের রাকাতসমূহ মিলিয়ে সমষ্টিকে ‘বিতর’ বলে বর্ণনা করেছেন। নবী (more…)
শবে ক্বদরের ইতিহাস, ফজিলত ও কিছু ভ্রান্ত ধারনাঃ

শবে ক্বদরের ইতিহাস, ফজিলত ও কিছু ভ্রান্ত ধারনাঃ

হাদিস
শবে ক্বদরের ইতিহাসঃ এ মহিমান্বিত রাত সর্ম্পকে হাদিস শরীফে অসংখ্য ফজিলত বর্ণনা করা হয়েছে। এমনকি কোরআন শরীফে সূরা আল কদর নামে স্বতন্ত্র একটি পূর্ণ সুরা নাজিল হয়েছে। এই সুরায় শবে কদরের রাত্রিকে হাজার মাসের চেয়ে উত্তম বলে বর্ণিত হয়েছে। পূর্ববর্তী নবী এবং তাদের উম্মতগণ দীর্ঘায়ু লাভ করার কারনে (more…)...
সহীহুল বুখারীর বঙ্গানুবাদ কিনতে চান কোন প্রকাশনীরটা কিনবেন? (Review)

সহীহুল বুখারীর বঙ্গানুবাদ কিনতে চান কোন প্রকাশনীরটা কিনবেন? (Review)

হাদিস
আমাদের দেশে ইসলামী ইলম চর্চার ইতিহাস অনেক পুরোনো । কুরআন ও হাদীসের বঙ্গানুবাদও হয়েছে প্রায় দু’শো বছর । আমাদের দেশে অনেক গুলো প্রকাশনী সিয়াহ সিত্তাহ সহ আরো অনেক হাদীস সংকলন গ্রন্থ প্রকাশ করেছে । কিন্তু সব প্রকাশনীর প্রকাশনার মান এক রকম নয় । তাই আপনারা সব থেকে সেরা হাদীস গ্রন্থ সহীহুল বুখারীর বঙ্গানুবাদ কোন প্রকাশনী থেকে কিনবেন তার একটা পরামর্শ আপনাদের দিতে চাই । আমি সহীহুল বুখারীর খন্ড গুলি মোট তিনটি প্রকাশনী থেকে সংগ্রহ করেছি । এগুলো হচ্ছে ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ , আধুনিক প্রকাশনী ও তাওহীদ পাবলিকেশন্স ।এ তিনটির প্রকাশনার ভেতরে আমার তুলনামূলক তাওহীদ পাবলিকেশন্স এর প্রকাশনা বেশি ভাল লেগেছে । তাই আমি আপনাদের ওই প্রকাশনীর সহীহুল বুখারীর বঙ্গানুবাদ সংগ্রহ করার জন্য অনুরোধ করবো । তাওহীদ পাবলিকেশন্স এর প্রকাশনার বিশেষ বৈশিষ্ট্যগুলি এর ভূমিকা থেকে কিছু অংশ আমি এখানে তুলে ধরছিঃ “আমাদের...